বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ০৯:০৬:০৮ এএম
শিরোনাম বয়স হওয়ার পরও বিয়ে করছেন না দেশের ৩৫ শতাংশ পুরুষ        রাশেক রহমান বিশ্বখ্যাত মারকুইস পাম্পের বাংলাদেশের আইনি প্রতিনিধি নিযুক্ত       নেপিয়ার ঘাস খেয়ে এক খামারির ২৭ গরুর মৃত্যু       ঢাকা ছাড়ছেন নগরবাসী       পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করায় দেশে স্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে : আইজিপি       শাহরাস্তিতে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সহায়ক উপকরণসহ নগদ অর্থ বিতরণ        ইসরায়েলকে টার্গেট করে ১৭০টি রকেট-ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ!      
প্রিন্স মামুনকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে চায় পুলিশ!
বিনোদন ডেস্ক :
Published : Tuesday, 11 June, 2024
প্রিন্স মামুনকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে চায় পুলিশ!

প্রিন্স মামুনকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে চায় পুলিশ!

লায়লা আখতার ফারহাদের করা ধর্ষণ মামলায় টিকটকার আব্দুল্লাহ আল মামুন ওরফে প্রিন্স মামুনকে (২৫) সাত দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেছে পুলিশ।  রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশ এ আবেদন করেছে।  মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে আজ।

এর আগে গতকাল সোমবার (১০ জুন) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের জেলার দাউদকান্দি টোলপ্লাজা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  পরে রাত সোয়া ১২টার দিকে তাকে ঢাকার উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা হয় বলে জানান ।

দাউদকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোজাম্মেল হক বলেন, টিকটকার মামুনের বিরুদ্ধে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়।  সেই প্রেক্ষিতে মামুন কুমিল্লায় অবস্থান করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশ আমাদেরকে গ্রেফতারের একটি রিকুইজিশন প্রেরণ করে।  এরপরই  দাউদকান্দি টোল প্লাজা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয় এবং রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার নেতৃত্বে ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট থানার একটি টিম আসলে রাত সোয়া ১২টার দিকে তাদের কাছে তাকে হস্তান্তর করা হয়।

উল্লেখ্য, টিকটকার লায়লাকে বিয়ের প্রলোভনে রবিবার (৯ জুন) প্রিন্স মামুনের বিরুদ্ধে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা করেন লায়লা।  অভিযোগে লায়লা উল্লেখ করেন, মামলার বিবাদী আব্দুল্লাহ আল মামুন ওরফে প্রিন্স মামুনের সঙ্গে আমার গত তিন বছর আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়।  পরিচয়ের একপর্যায়ে মামুন আমাকে বিয়ে করবে মর্মে প্রলোভন দেখিয়ে আমার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করে সে।  সে আমাকে জানায়, তার ঢাকায় থাকার মত নিজস্ব কোনো বাসা নেই।  যেহেতু প্রেমের সম্পর্ক সৃষ্টি হয় এবং মামুন আমাকে বিয়ে করবে বলে জানায় তাই তার কথা সরল মনে আমি বিশ্বাস করে তাকে আমার বাসায় থাকার অনুমতি দিই তখন।

২০২২ সালের ৭ জানুয়ারি মামুন তার মাকে সঙ্গে নিয়ে আমার বাসায় এসে বসবাস করতে থাকে।  ওইদিন থেকে সে আমার বাসায় আমার সঙ্গে একই রুমে থাকতে শুরু করে।  আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিভিন্ন তারিখ ও সময়ে একাধিকবার আমার সঙ্গে শারীরিক সর্ম্পক স্থাপন করে।  মামুন আমার বাসায় থাকাকালে তার বাবা-মা মাঝেমধ্যেই সেখানে এসে অবস্থান করতো । আমি মামুনকে একাধিকবার বিয়ের বিষয় বললে সে বিভিন্ন অজুহাতে সময় ক্ষেপণ করতে থাকে সে।  সর্বশেষ চলতি বছরের ১৪ মার্চ মামুন আমার শয়ন কক্ষে আগের মতো আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমাকে ধর্ষণ করে। পরবর্তী সময়ে আমি তাকে বিয়ের বিষয়ে বললে সে আমার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।  আমাকে বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে।

তাই আমি বাধ্য হয়ে আইনের আশ্রয় নিয়েছি।  আমি এর কঠিন বিচার চাই।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







সর্বশেষ সংবাদ
⇒সর্বশেষ সব খবর...
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : প্ল্যানার্স টাওয়ার, ১০তলা, ১৩/এ বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, বাংলামটর, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
ফোন: +৮৮-০২-৪১০৬৪১১১, ৪১০৬৪১১২, ৪১০৬৪১১৩, ৪১০৬৪১১৪, ফ্যাক্স: +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪,হটলাইন : +৮৮-০১৯২৬৬৬৭০০৩-৪
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected], [email protected], web : www.gonokantho.com